কুরআনের দেখানো পথ



নিশ্চয়ই এই কুরআন সে পথ দেখায় যা সোজা ও সুপ্রতিষ্ঠিত, আর সৎকর্মপরায়ণ মুমিনদেরকে সুসংবাদ দেয় যে, তাদের জন্য রয়েছে মহা পুরস্কার। আর (এই সংবাদ দেয় যে) যারা পরকালে বিশ্বাস করে না, আমি তাদের জন্য যন্ত্রণাদায়ক শাস্তি প্রস্তুত করে রেখেছি। -[সূরা বনী ইসরাঈল, আয়াত: ৯-১০]

আল্লাহ্ তাবারক ওয়া তা'আলা স্বীয় পবিত্র কিতাবের প্রশংসায় বলেন যে, এই কুরআন সুপথ প্রদর্শন করে থাকে। যে সব মুমিন ঈমান অনুযায়ী নবীর (স) কথার উপর আমল করে, তাদেরকে এই সুসংবাদ দেয়া হয়, তাদের জন্য আল্লাহ তা'আলার নিকট রয়েছে বিরাট পুরস্কার এবং সেখানে পাবে অফুরন্ত নিয়ামত। পক্ষান্তরে যাদের মধ্যে ঈমান নেই তাদেরকে এই সংবাদ দেয়া হয়েছে যে তাদের জন্য রয়েছে বেদনাদায়ক শাস্তি। যেমনটি আল্লাহ তা'আলা বলেন- তুমি তাদেরকে যন্ত্রণাদায়ক শাস্তির সুসংবাদ দিয়ে দাও। -(ক্বুরআন, ৪৫ : ৮)

মহান আল্লাহ তা'আলা আরও বলেন:
'যে ভালো কাজ করে তা সে নিজের উপকারের জন্যেই করে, পক্ষান্তরে যে খারাপ কাজ করে ওর ফল তাকেই ভোগ করতে হয়।' 
'আর যে কেউ আল্লাহ্ এবং রাসূলের আনুগত্য করবে, (কিয়ামতের দিন) সে তাদের সঙ্গী হবে যাদের প্রতি আল্লাহ্ অনুগ্রহ করছেন; তাঁরা হলেন নবী, সিদ্দীক, শহীদ ও সৎকর্মশীলগণ। আর সঙ্গী হিসেবে তাঁরাই উত্তম।'


তথ্যসূত্র:
  • তাফসীর ইবনে কাসীর


প্রাসঙ্গিক লিখা:

0 comments:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

"পাঠ করুন আপনার পালনকর্তার নামে যিনি সৃষ্টি করেছেন মানুষকে জমাট রক্ত থেকে। যিনি কলমের সাহায্যে শিক্ষা দিয়েছেন মানুষকে যা সে জানত না। আপনার পালনকর্তা অতি দয়ালু। নিশ্চয়ই আপনার পালনকর্তার দিকেই প্রত্যাবর্তন হবে।"