তাদের অন্তর ও কর্ণ তালাবদ্ধ



'আল্লাহ তাদের অন্তর ও কানের উপর মোহর করে দিয়েছেন, আর তাদের চোখে আছে আবরণ আর তাদের জন্য আছে মহা শাস্তি।'-[সূরা বাকারাহ, আয়াত: ৭]
হযরত কাতাদাহ (রহ:) বলেন, অর্থাৎ শয়তান তাদের উপর বিপুলভাবে জয়লাভ করেছে এবং তারা তারই আজ্ঞাবহ দাসে পরিণত হয়েছে। সুতরাং তারা হিদায়াতকে দেখতেও পাচ্ছে না, শুনতেও পাচ্ছে না এবং তা বুঝতেও পারছে না।

ইমাম কুরতবী (রহ:) বলেন, উম্মতের ইজমা আছে যে, মহান আল্লাহ্ মোহর করাকেও নিজের একটি বিশেষগুণ রূপে বর্ণনা করেছেন যে, 'মোহর কাফিরদের উপর তাদের কুফরীর প্রতিদান স্বরূপ হয়ে থাকে।'

আল্লাহ মোহর মেরে দিয়েছেন বলেই তারা মেনে নিতে অস্বীকার করেছে– এটা এ বক্তব্যের অর্থ নয়৷ বরং এর অর্থ হচ্ছে, যখন তারা (সূরা বাকারার আয়াত নং ১-৬ এ বর্ণিত) মৌলিক বিষয়গুলো প্রত্যাখ্যান করেছে এবং নিজেদের জন্য কুরআনের উপস্থাপিত পথের পরিবর্তে অন্য পথ বেছে নিয়েছে তখন আল্লাহ তাদের হৃদয়ে ও কানে মোহর মেরে দিয়েছেন৷

ইমাম ইবনে জারীরের (রহ:) ফায়সালা এই যে, হাদীসে এসেছে: 'মুমিন যখন পাপ করে তখন তার অন্তরে একটি কালো দাগ হয়ে যায়, যদি সে পাপ কার্য হতে ফিরে আসে ও বিরত হয়, তবে ঐ দাগটি সরে যায় এবং তাঁর অন্তর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন হয়ে যায়। আর যদি সে গুণাহ করতেই থাকে তবে সেই পাপ আরো ছড়িয়ে পড়ে এবং শেষ পর্যন্ত তার সমস্ত অন্তরকে ছেয়ে ফেলে। এটাই সেই মরিচা যার বর্ণনা এই আয়াতে রয়েছে: 'নিশ্চয় তাদের খারাপ কাজের কারণে তাদের অন্তরে মরিচা পড়ে।' -(সুনানে নাসাঈ, তিরমিযী, তাফসীর ইবনে জারীর)

কুরআনুল কারীমের অন্য এক সূরাতে এসেছে- 
'... বরং তাদের কৃতকর্মই তাদের অন্তরে জং ধরিয়ে দিয়েছে'। -(৮৩:১৪)

তথ্যসূত্র:

  • তাফসীর ইবনে কাছীর
  • তাফহীমুল কুরআন

প্রাসঙ্গিক বিষয়


0 comments:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

"পাঠ করুন আপনার পালনকর্তার নামে যিনি সৃষ্টি করেছেন মানুষকে জমাট রক্ত থেকে। যিনি কলমের সাহায্যে শিক্ষা দিয়েছেন মানুষকে যা সে জানত না। আপনার পালনকর্তা অতি দয়ালু। নিশ্চয়ই আপনার পালনকর্তার দিকেই প্রত্যাবর্তন হবে।"